ব্রেকিং নিউজ

সরিষাবাড়ীতে ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করলো দশম শ্রেণীর ছাত্র

ইসমাইল হোসেন সরিষাবাড়ী(জামালপুর)প্রতিনিধিঃ জামালপুরের সরিষাবাড়ী পৌরসভার আরামনগর বাজার সামর্থ্য বাড়ী এলাকায় ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এক দশম শ্রেণীর ছাত্র। জানা গেছে, গত ৩ এপ্রিল শুক্রবার রাতে বাবা-মার সাথে অভিমান করে নিজগৃহে সিলিং ফ্যানের সাথে গামছা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে নাজমুল হাসান(১৫) নামে এই কিশোর।

এলাকাবাসী ও শোকাহত পরিবার সূত্রে জানা যায়, সরিষাবাড়ী উপজেলার ডোয়াইল ইউনিয়নের ভবানীপুর এলাকার বাসিন্দা সাইদুর ইসলাম। তিনি সরিষাবাড়ী সাব রেজিস্ট্রি অফিসে ভেন্ডারদের সাথে সহকারী দলিল লেখক হিসেবে কাজ করেন এবং সন্তানদের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ এর কথা চিন্তা করে গ্রাম হতে শহরে ভাড়াটিয়া হিসেবে দীর্ঘদিন যাবৎ বসবাস করছেন সামর্থ্য বাড়ী সুকন তালুকদারের বাসায়। তার দুই ছেলে,তন্মধ্যে নাজমুল হাসান হলো জেষ্ঠ্য সন্তান। সে আর ইউ টি স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্র বলে জানা গেছে।

এদিকে নিহত নাজমুল হাসানের বাবা সাইদুর মুন্সী জানান, ফজরের নামাজ পড়ে ছেলেকে ডাকতে গেলে ছেলের কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙ্গে দেখতে পারি সিলিং ফ্যানের সাথে ছেলের ঝুলন্ত লাশ।

এমন দৃশ্য দেখে তিনি চিৎকার করলে পাড়া পড়শিরা ছুটে আসেন বলে জানান।এদিকে সরিষাবাড়ী থানায় বিষয়টি অবগত করলে এস আই সাইফুল ঘটানাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পান এবং লাশটির সুরুত হাল সনাক্ত করে ময়নাতদন্তের জন্য জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছেন বলে জানান সরিষাবাড়ী থানার পরিদর্শক(তদন্ত) অফিসার জোয়াহেরুল ইসলাম খান। অপর দিকে নাজমুল হাসানে এমন অপমৃত্যুর কারণে এলাকার মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। কেউ বলছেন এটি প্রেম ঘটিত বিষয় নতুবা ছেলেটি অতিরিক্ত জেদি বলে বাবা-মা’র উপর অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে।