ব্রেকিং নিউজ

বান্দরবান সরকারি কলেজে বসন্ত উৎসব পালিত

বি.কে বিচিত্র, বান্দরবান জেলা প্র‍তিনিধি:ফাল্গুনের হাত ধরেই প্রকৃতিতে ঋতুরাজ বসন্তের আগমন ঘটে। ঋতুরাজকে স্বাগত জানাতে প্রকৃতির বর্ণিল সাজে সজ্জিত হয়েছে। বসন্তের আগমনে প্রকৃতির সঙ্গে তরুণ হৃদয়েও লেগেছে দোলা। সকল কুসংস্কারকে পেছনে ফেলে, বিভেদ ভুলে, নতুনের প্রত্যয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার বার্তা নিয়ে বসন্ত উপস্থিত হয়েছে।

আর তাই তো বসন্তের আনুষ্ঠানিক বার্তা জানান দিতে কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় লিখেছেন- ‘ফুল ফুটুক আর না-ই ফুটুক আজ বসন্ত’। বসন্তের আগমনকে ঘিরে বান্দরবান সরকারি ককেজ প্রাঙ্গণে শিক্ষার্থীদের ঐকতান জানান দেয় বসন্ত এসে গেছে। আর তাই বাসন্তী রং শাড়ি পড়ে, কপালে টিপ, হাতে কাঁচের চুড়ি, পায়ে নুপুর, খোঁপায় গাঁদা ফুল আর ছেলেরা ফতুয়া-পাঞ্জাবি, ফতুয়া পড়ে ভালোবাসার বসন্ত বন্দনায় মুখরিত করে সাঁটলের ক্যাম্পাস।

বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা দল বেঁধে আড্ডায় ব্যস্ত ছিলো। ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ জায়গা ছিল নবীনের দখলে। বেশির ভাগ তরুণ-তরুণীদের ছবি তুলে সামাজিক গণমাধ্যমে শেয়ার করতে দেখা গেছে। বসন্ত অনেক ফুলের বাহারে সজ্জিত হলেও গাঁদা ফুলের রঙকেই পোশাকে ধারণ করে তরুণ-তরুণীরা। খোঁপায় শোভা পায় গাঁদা ফুলের মালা।

শীতের রুক্ষতার প্রকৃতির রিক্ততায় ক্যাম্পাসে ছিল না প্রাণের জোয়ার।বান্দরবান সরকারি কলেজে প্রতিবারের ন্যায় এবারও নানা আয়োজনে বরণ করে নিয়েছে ঋতুরাজকে। কলেহের এই উৎসবের আয়োজনে বসন্তের প্রকৃতি বর্ণনা ও বন্দনা করা ছাড়াও বাঙালির জীবনে বসন্তের প্রভাব নানা ব্যঞ্জনায় ফুটিয়ে তোলা হয়েছে।

বসন্তের শুভেচ্ছা জানিয়ে অধ্যক্ষ মোঃ মকছুদুল আমিন বলেন, ‘বসন্তের এ দিনে আমাদের প্রাণপ্রিয় শিক্ষার্থীরা অন্যায়-অবিচার-দুর্নীতি ও সন্ত্রাসকে প্রতিহত করে সকল কুসংস্কার ও অন্ধকার শক্তিকে নিধন করে আলোর প্রজ্জ্বলন ঘটিয়ে দেশ তথা বিশ্বকে আলোকিত করবে এটিই হোক বসন্তের শপথ।’

বাংলা বিভাগের প্রভাষক মেহেদী হাসান বলেন, ‘বসন্ত সব সময় মনেই থাকে। প্রকৃতি তাকে রাঙিয়ে তোলে কেবল’আগত শিক্ষার্থীরা বলেন, ‘সকাল থেকেই এসেছি। আজ খুবই ভালো লাগছে। বন্ধুদের সাথে ছবি তুলেছি, ঘুরছি।

বাংলা পঞ্জিকা বর্ষের শেষ ঋতু বসন্তের প্রথম দিনকে আমরা পালন করি ‘পহেলা ফাল্গুন-বসন্ত উৎসব’ হিসেবে পালন করি। এ উৎসব এখন পরিণত হয়েছে বাঙালির নিজস্ব সার্বজনীন প্রাণের উৎসবে। বসন্তের প্রথম মুহূর্তকে ধরে রাখতে তাই তো সবাই মেতে ওঠে নানা উৎসব ও সাজে। বাসন্তি রঙের শাড়িতে বাঙালি নারীকে অপরূপ দেখায়।