ব্রেকিং নিউজ

বেলকুচিতে তৃনমূল থেকে উঠে আসা জনপ্রিয় নেতা সাজ্জাদুল হক রেজা

মোঃ জহির রায়হান-সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিসিরাজগঞ্জ জেলার তাত সমৃদ্ধ জনপদের নাম বেলকুচি ।১৯৮৩ সালের ৩১ জুলাই একটি সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহন করেন সাজ্জাদুল হক রেজা। বাবা মরহুম আলহাজ্ব মোজাম্মেল হক মন্ডল ছিলেন একজন ব্যাংক কর্মকর্তা। মা আলহাজ্ব বেগম সাজেদা হক একজন পুরোদস্তুর গৃহিনী।

বাবা মা তাদের সকল শ্রম দিয়েছিলেন ৪ ছেলে ও ২ মেয়েকে মানুষের মত মানুষ করতে। সাজ্জাদুল হক রেজার বড় ভাই সাজ্জাদ হায়দার বাংলাদেশ বিমান বাহিনীতে কর্মরত আছেন,মেঝ ভাই নুরুল ইসলাম সাজেদুল পেশায় ব্যবসায়ী এবং বর্তমান বেলকুচি উপজেলা চেয়ারম্যান,সেজ ভাই সাজেদুল কবির পেশায় সরলারী চাকুরিজীবি। বড় বোন মোছাঃ মাহবুবু পারভীন বিউটি ও ছোট বোন মাহফুজা খাতুন আদুরী দুই জনই সরকারী চাকুরি করেন।

সাজ্জাদুল হক রেজা ছোট বেলা থেকেই ছিলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী মানুষ। রাজনীতির পাশাপাশি লেখা পড়াতেও রেখেছেন মেধাবীর ছাপ। ৯৯৮ সালে ১ম বিভাগে এস এস সি, ২০০১ সালে ১ম বিভাগে এইচ এস সি , ২০০৮ সালে বিবিএ তে ৩.৬০ পয়েন্ট পান আর এমবিএ তে ২০১০ সালে ৩.৫০ পয়েন্ট নিয়ে কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ন হন।

রাজনোইতিক জীবনের শুরুতে ২০০১ সালে জামায়াত বিএনপি জোট সরকারের আমলে সাজ্জাদুল হক রেজা ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সক্রীয় সদস্য ছিলেন। ২০০৩ সালে তিনি বেলকুচি উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক নির্বাচিত হন.২০০৪ সালে কঠিন পরিস্থিতির ভিতরে বুকে সাহস নিয়ে বেলকুচি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদকের দায়িত্ব ভার গ্রহন করেন।

২০১৬ সালে সাজ্জাদুল হক রেজা সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সিনিয়র সহ সভাপতির দায়িত্ব ভার গ্রহন করেন.২০১৭ সাল হতে বর্তমান পর্যন্ত তিনি বেলকুচি উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

সাজ্জাদুল হক রেজা রাজনৈতিক প্রতিহিংসার স্বীকার হয়ে কারাবরন করেছেন এবং জনগনের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে আবার মানুষের সেবায় নিজেকে রাজনৈতিক মাঠে সপে দিয়েছেন। কর্মীবান্ধব এই নেতা সম্পুর্কে আওয়ামীলীগের একজন প্রবীন নেতা বলেন, “ সাজ্জাদুল হক রেজার কারনে বেলকুচিতে জামায়াত বিএনিপি মাঠে নামতে পারে না। বেলকুচি উপজেলা আওয়ামীলীগের ভবিষ্যত রেজা। আমরা তার সাথে আছি এবং থাকবো”

Leave a Reply