ব্রেকিং নিউজ

সরিষাবাড়ীতে সম্মুখ যুদ্ধের স্মরণে স্মৃতিচারণ ও পুষ্পস্তবক অর্পণ

ইসমাইল হোসেন সরিষাবাড়ী(জামালপুর) প্রতিনিধিঃ যুদ্ধ মানে জীবন জীবন খেলা,যুদ্ধ মানে আমার প্রতি তোমার অবহেলা। নির্মূলনিন্দুগুণের সেই ছোট্ট কবিতাটি আজও মনে পড়ে যখন ৭১’এর এই দিনগুলো আমাদের সম্মুখে সূর্যের মত উদ্ধিত হয়। ভাবা যায় না, কতটুকু সাহস আর দেশপ্রেম বুকে থাকলে সম্মুখ যুদ্ধ অংশগ্রহণ করা যায়।

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে এমনি একটি সম্মুখ যুদ্ধ হয়ে ছিল ১৯৭১ সালে ১০ অক্টোবর মাসে। তাই এই দিনটিকে সম্মুখ যুদ্ধ দিবস হিসেবে পালন করেছে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। জানা গেছে গত ১০ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকালে বাউসী পপুলার মোড় মুক্তিযোদ্ধা স্মরণীতে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উদ্যেগে জাতীয় পতাকা, কালো পতাকা, মুক্তিযুদ্ধ পতাকা উত্তোলন, পুস্পস্তবক অর্পন, দোয়া ও আলোচনা সভার মধ্যে দিয়ে এ দিবস পালন করা হয়। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব উদ্দিন আহমদ এর সভাপতিত্বে আলোাচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জামালপুরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামুল হক।

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন- উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন পাঠান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব ছানোয়ার হোসেন বাদশা, পৌর মেয়র রুকুনুজ্জামান রোকন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মোফাজ্জল হোসেন, যুদ্ধকালীন কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা এম.এ লতিফ প্রমুখ। আলোচনা সভা পরিচালনা করেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের সভাপতি ফরিদুল ইসলাম বলে জানা গেছে।

উল্লেখ, জামালপুরের সরিষাবাড়ীর বাউসী পপুলার মোড়ে ১৯৭১ সালে ১০ অক্টোবর মহান মুক্তিযুদ্ধে সময় রেলওয়ে ব্রীজ ভাঙ্গতে আসলে পাক সেনাদের সাথে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মুখ যুদ্ধ হয়। আর এই সম্মুখ যুদ্ধে রফিক, জালাল, আবুল কালাম আজাদ ও জোয়াহের আলী শহীদ হন এবং আহত হন ১৫/২০ জন বলে আজও বীরমুক্তিযোদ্ধাদের মনকে মর্মাহত করে।

Leave a Reply