ব্রেকিং নিউজ

শিয়াল রান্না করে খেলো চার যুবক: অতঃপর বিট কর্মকর্তার মামলা

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় শিয়াল রান্না করে খাওয়ার অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। বুধবার (৩ অক্টোবর) রাতে চারজনকে অভিযুক্ত করে হাতীবান্ধা থানায় মামলাটি করা হয়।

গত শনিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) হাতীবান্ধা উপজেলার গেন্দুকুড়ি গ্রামে শিয়াল রান্না করে খাওয়া হয়। শিয়ালটি জবাই করে গাছে ঝুলিয়ে চামড়া ছাড়ানোর দৃশ্য সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, হাতীবান্ধা উপজেলার গেন্দুকুড়ি গ্রামের আজহার আলীর ছেলে আবুল কালাম, আব্দুস ছামাদ ভূঁইয়ার ছেলে খোরশেদ আলম, সুরুজ জামালের ছেলে আলমগীর হোসেন, মাজম শেখের ছেলে সুরুজ জামালসহ কয়েকজন একটি শিয়ালকে আটক করে জবাই করে গাছের সঙ্গে টাঙিয়ে চামড়া ছাড়াচ্ছিল।

একই গ্রামের আব্দুল গফুরের ছেলে নায়েব আলী মোবাইল ফোনে সেই দৃশ্য ভিডিও করে। পরে সেটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়া হয়।

অভিযুক্ত আবুল কালাম গণমাধ্যমকে বলেন, পোষা ছাগলকে ধরে নিয়ে যাচ্ছিল একটি শিয়াল। ধাওয়া করে শিয়ালটিকে আটক করা হয়। শিয়ালের মাংস খেলে অনেক ধরনের রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়-এ ধরনের বিশ্বাস থেকে শিয়ালটিকে জবাই করে মাংস ভাগ করে রান্না করে খাওয়া হয়।

হাতীবান্ধা উপজেলা বিট কর্মকর্তা নূরনবী বাদল গণমাধ্যমকে বলেন, বুধবার দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্তদের শনাক্ত করা হয়েছে। এদিন রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়।

Leave a Reply