ব্রেকিং নিউজ

Realme XT, Redmi Note 7 Pro, Samsung Galaxy A30s ও Vivo Z1 Pro কোন ফোনটি কিনবেন?

ই-কমার্স সাইটগুলিতে রমরমিয়ে বিক্রি হচ্ছে নানা সংস্থার ফোন। তার মধ্যে কোন ফোনটি আপনার জন্য উপযুক্ত তা বুঝবেন কী করে? সেই কনফিউজনের সমাধানেই বাজারচলতি চারটি স্মার্টফোনের স্পেসিফিকেশন-ভিত্তিক তুলনা করা হল। এক নজরে দেখে নিন আপনার জন্য পারফেক্ট কোন স্মার্টফোন।

১. ডিসপ্লে

Realme XT: ৬.4 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। এই ফোনের স্ক্রিন টু বডি রেশিও অনেকটাই বেশি। থাকছে ওয়াটারড্রপ নচ।

Redmi Note 7 Pro: ৬.৩ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। এই ফোনের স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮১ শতাংশেরও বেশি।
Samsung Galaxy A30s: ৬.৪ ইঞ্চি সুপার অ্যামোলেড ইনফিনিটি-ইউ ডিসপ্লে। এই ফোনের স্ক্রিন টু বডি রেশিও আগের সংস্করণের চেয়েও বেশি। থাকছে ওয়াটার ড্রপ নচ।

Vivo Z1 Pro:৬.৫৩ ইঞ্চি ফুল আইপিএস এলসিডি ফুল এইচডি ডিসপ্লে। এখনকার স্মার্টফোনের ট্রেন্ড বজায় রেখে এই ফোনের স্ক্রিন টু বডি রেশিও যথেষ্ট বেশি। স্ক্রিনের রেজোলিউশান ১০৮০x২৩৪০ পিক্সেল। থাকছে পাঞ্চ-হোল সেলফি ক্যামেরা।

২. স্টোরেজ ও RAM-

Realme XT: ৪ জিবি RAM + ৬৪ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ, ৬ জিবি RAM + ৬৪ জিবি এবং ৮ জিবি RAM + ১২৮ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ ভেরিয়েন্টে পাওয়া যাবে এই স্মার্টফোনটি।

Redmi Note 7 Pro: দু’ রকম স্টোরেজ ভেরিয়েন্টে পাওয়া যাবে এই ফোন। ৪ জিবি RAM + ৬৪ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ আর ৬ জিবি RAM + ১২৮ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজে পাওয়া যাবে Redmi Note 7 Pro। ফোনের ইন্টার্নাল স্টোরেজ MicroSD কার্ডের সাহায্যে ১ টিবি (১০২৪ জিবি) পর্যন্ত বাড়িয়ে নেওয়া যাবে।

Samsung Galaxy A30s: ৪ জিবি RAM আর ৬৪ জিবি বা ১২৮ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ অপশনে Samsung Galaxy M30s যাবে। প্রসেসরের বিষয়ে এখনও কিছু জানায়নি সংস্থা।

Vivo Z1 Pro:৪ জিবি RAM + ৬৪ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ এবং ৬ জিবি RAM + ১২৮ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ ভেরিয়েন্টে মিলবে এই ফোন।

৩. অপারেটিং সিস্টেম ও প্রসেসর:

Realme XT: Android ৯.০ (Pie) অপারেটিং সিস্টেম আর Snapdragon ৭১২ চিপসেট।
Redmi Note 7 Pro: Android ৯.০ (Pie) অপারেটিং সিস্টেম আর Snapdragon ৬৭৫ চিপসেট।
Samsung Galaxy A30s: Android 9 Pie অপারেটিং সিস্টেম থাকছে। Samsung Exynos 7904 প্রসেসর।
Vivo Z1 Pro: Android ৯.০ (Pie) অপারেটিং সিস্টেম আর Snapdragon ৭১২AIE চিপসেট।

৪. ক্যামেরা:

Realme XT: ছবি তোলার জন্য থাকছে ৬৪ মেগাপিক্সেল (প্রাইমারি সেন্সার) + ৮ মেগাপিক্সেলের (ওয়াই অ্যাঙ্গেল) + ২ মেগাপিক্সেল (ম্যাক্রো) + ২ মেগাপিক্সেল (ম্যাক্রো) ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ আর ১৬ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার।
Redmi Note 7 Pro: ছবি তোলার জন্য থাকছে ৪৮ মেগাপিক্সেল (Sony IMX586 প্রাইমারি সেন্সার) + ৫ মেগাপিক্সেলের ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ আর ১৩ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার।
Samsung Galaxy A30s: ২৫ মেগাপিক্সেল + ৫ মেগাপিক্সেল + ৮ মেগাপিক্সেল ট্রিপেল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ আর ১৬ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা।

Vivo Z1 Pro: ছবি তোলার জন্য থাকছে ১৬ মেগাপিক্সেল (প্রাইমারি সেন্সার) + ৮ মেগাপিক্সেল (ডেপ্থ সেন্সার)+ ২ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। সেলফির জন্য থাকছে ৩২ মেগাপিক্সেলের পাঞ্চ-হোল সেলফি ক্যামেরা। রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সার।

৫. ব্যাটারি:

Realme XT: এই ফোনে থাকছে ৪,০০০ mAh-এর নন রিমুভেবল ব্যাটারি। থাকছে ফাস্ট চার্জিং-এর সুবিধা।
Redmi Note 7 Pro: এই ফোনে থাকছে ৪,০০০ mAh-এর নন রিমুভেবল ব্যাটারি। সঙ্গে থাকছে ফাস্ট চার্জিং-এর সুবিধা।
Samsung Galaxy A30s: ব্যাটারির বিষয়ে বেশ জোর দিয়েছে Samsung। ৪,০০০ mAh ব্যাটারি থাকছে Samsung Galaxy M30s-এ।
Vivo Z1 Pro: এই ফোনে থাকছে ৫,০০০ mAh-এর নন রিমুভেবল ব্যাটারি। অর্থাত্ ব্য়াটারি বেশ দীর্ঘস্থায়ী। এর সঙ্গেই থাকছে ১৮w ফাস্ট চার্জিং-এর সুবিধা।

৬. দাম:

Realme XT: Realme XT-এর দাম শুরু ১৫,৯৯৯ টাকা থেকে। টপ ভেরিয়েন্টের দাম ১৮,৯৯৯ টাকা। আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর থেকে বিক্রি শুরু হবে ফোনের। পাওয়া যাবে রিয়েলমি-এর ওয়েবসাইট ও ফ্লিপকার্ট-এ।

Redmi Note 7 Pro: Redmi Note 7 Pro-এর ৪ জিবি RAM + ৬৪ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের দাম ১৩,৯৯৯ টাকা। ৬ জিবি RAM + ১২৮ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ ভেরিয়েন্ট কিনতে হলে গুনতে হবে ১৬,৯৯৯ টাকা।

Samsung Galaxy A30s: Samsung Galaxy M30s-এর সম্ভাব্য দাম শুরু ১৬,৯৯৯ টাকা থেকে।
Vivo Z1 Pro: Vivo Z1 Pro-এর ৪ জিবি RAM + ৬৪ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের দাম ১৪,৯৯০ টাকা। ৬ জিবি RAM + ১২৮ জিবি ইন্টার্নাল স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের দাম ১৭,৯৯০ টাকা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা থেকে Flipkart-এ বিক্রি শুরু হয়েছে ফোনের।

Leave a Reply