ব্রেকিং নিউজ

ভারতের প্রথম ইলেকট্রিক বাইক Revolt RV 400!

প্রযুক্তি ডেস্ক :

বৈদ্যুতিক দু’চাকার গাড়ি বলতেই আমাদের চোখের সামনে ভেসে ওঠে ছোট্ট আকারের ধীরগতির স্কুটার। সেই ধারণাই ভেঙে দিল Revolt RV 400। বহু প্রতীক্ষার পর বুধবার ভারতের বাজারে এল Revolt-এর বিদ্যুত্চালিত অ্যাগ্রেসিভ ডিজাইনের বাইক।

বর্তমানে বাইকারদের মধ্যে ট্রেন্ড নেকড ডিজাইনের বাইক। সেই পথেই হেঁটেছেন Revolt-এর ডিজাইনাররা। চিনা সংস্থা Super Soco-এর ইলেকট্রিক বাইকের সঙ্গে বেশ সাদৃশ্য আছে এই বাইকের। অ্যাগ্রেসিভ এলইডি হেডলাইট। উঁচু মাসকুলার ট্যাঙ্ক। সাথে স্লোপিং সিটিং পজিশন। না বলে দিলে বোঝার উপায় নেই যে এটি একটি ইলেকট্রিক বাইক। স্টাইলের খাতায় ১০০-এ ১০০।

শুধু যে দেখতেই পেট্রোলচালিত বাইকের মতো, তা নয়। এই বাইকের আওয়াজও কিন্তু পেট্রোলচালিত বাইকের মতোই। বাইকপ্রেমীদের কাছে ইঞ্জিনের শব্দ সবসময়ই শ্রুতিমধুর। সেই দিকে নজর রেখেই এই ব্যবস্থা। ভাবছেন ব্যাটারিচালিত মোটরে আওয়াজ হবে কী করে? বিশেষ স্পিকার থাকছে Revolt RV 400। স্মার্টফোনের ব্লুটুথের সাহায্যে কাস্টমাইজও করতে পারবেন সেই ইঞ্জিনের আওয়াজ। একই বাইকে হবে স্পোর্টসবাইকের অ্যাগ্রেসিভ শব্দ বা ক্রুজারের গুরুগম্ভীর শব্দ।

বৈদ্যুতিক দু’চাকার গাড়ি বলতেই আমাদের চোখের সামনে ভেসে ওঠে ছোট্ট আকারের ধীরগতির স্কুটার। সেই ধারণাই ভেঙে দিল Revolt RV 400। বহু প্রতীক্ষার পর বুধবার ভারতের বাজারে এল Revolt-এর বিদ্যুত্চালিত অ্যাগ্রেসিভ ডিজাইনের বাইক।

বর্তমানে বাইকারদের মধ্যে ট্রেন্ড নেকড ডিজাইনের বাইক। সেই পথেই হেঁটেছেন Revolt-এর ডিজাইনাররা। চিনা সংস্থা Super Soco-এর ইলেকট্রিক বাইকের সঙ্গে বেশ সাদৃশ্য আছে এই বাইকের। অ্যাগ্রেসিভ এলইডি হেডলাইট। উঁচু মাসকুলার ট্যাঙ্ক। সাথে স্লোপিং সিটিং পজিশন। না বলে দিলে বোঝার উপায় নেই যে এটি একটি ইলেকট্রিক বাইক। স্টাইলের খাতায় ১০০-এ ১০০।

শুধু যে দেখতেই পেট্রোলচালিত বাইকের মতো, তা নয়। এই বাইকের আওয়াজও কিন্তু পেট্রোলচালিত বাইকের মতোই। বাইকপ্রেমীদের কাছে ইঞ্জিনের শব্দ সবসময়ই শ্রুতিমধুর। সেই দিকে নজর রেখেই এই ব্যবস্থা। ভাবছেন ব্যাটারিচালিত মোটরে আওয়াজ হবে কী করে? বিশেষ স্পিকার থাকছে Revolt RV 400। স্মার্টফোনের ব্লুটুথের সাহায্যে কাস্টমাইজও করতে পারবেন সেই ইঞ্জিনের আওয়াজ। একই বাইকে হবে স্পোর্টসবাইকের অ্যাগ্রেসিভ শব্দ বা ক্রুজারের গুরুগম্ভীর শব্দ।

Revolt RV 400-এ থাকছে একগুচ্ছ অভিনব ফিচার্স। ফোনের ব্লুটুথের মাধ্যমেই চালু করা যাবে গাড়ির মোটর। বাইকের নিরাপত্তার দিকেও নজর দিয়েছে সংস্থা। আপনার ফোন থেকেই জিপিএস-এর মাধ্যমেই ট্র্যাক করতে পারবেন আপনার বাইক কোথায় আছে।

আকর্ষণীয় লাল ও কালো রঙে পাওয়া যাবে Revolt RV 400। প্রাথমিক ভাবে দিল্লি, বেঙ্গালুরু, হায়দ্রাবাদ, নাগপুর, আমেদাবাদ ও চেন্নাইতে পাওয়া যাবে রিভোল্ট আর ভি ৪০০। বাইকের দাম রাখা হয়েছে মধ্যবিত্তের সাধ্যের মধ্যেই। বাইকের দাম ১ লাখ টাকা (অন-রোড)। বুক করতে জমা দিতে হবে মাত্র ১,০০০ টাকা। বুকিং করা যাবে রিভোল্ট-এর ওয়েবসাইট বা আমাজন থেকে। ভারতে প্রথমবার অনলাইন রিটেল থেকে বাইক কিনতে পারবেন গ্রাহকরা।

Leave a Reply