ব্রেকিং নিউজ

স্টেডিয়ামের ভেতর ইটের রাস্তা নির্মাণ

:ক্রীড়াঙ্গনে দিন দিন সাফল্যের সংখ্যা বাড়ছে। ক্রিকেট ফুটবল ছাড়াও বহু খেলায় এগিয়ে যাচ্ছে দেশ, সবচেয়ে বেশি এগুতে থাকা ক্রিকেট এখন দেশের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে পড়েছে। জাতীয় পর্যায় ছাড়াও জেলা উপজেলার ক্রিকেট কাঠামোও শক্তিশালী হচ্ছে দিন দিন। জাতীয় দলে প্রতিনিধিত্ব করা ক্রিকেটারদের মধ্যে প্রায়জনই নিজ নিজ এলাকার ক্রিকেটে পারফর্ম করেই নিজেদের জাতীয় পর্যায়ে নিজেদের উন্নীত করেন। ক্রিকেট বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান দিন দিন মজবুত হওয়ায় ক্রিকেটে ক্যারিয়ার গড়ার স্বপ্ন নিয়ে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল সহ জেলা শহরগুলোর বিভিন্ন ক্রিকেট একাডেমীতে খেলা শুরু করছে কিশোররা।

জেলা পর্যায়ের সর্বোচ্চ ক্রিকেট অনুষ্ঠিত হয় জেলা স্টেডিয়ামে, যেখানে জেলার প্রথম বিভাগ, ২য় বিভাগ, প্রিমিয়ার লীগ সহ বিভিন্ন টুর্নামেন্ট আয়োজন হয়। ক্রিকেট ছাড়াও ফুটবল এবং আরো অনেক স্বীকৃত খেলা আয়োজন হয় জেলা স্টেডিয়ামে। জাতীয় পর্যায়ে খেলোয়ার তোলে আনার জন্য জেলা স্টেডিয়ামের গুরুত্ব অনেক, তা সকলেই একবাক্যে স্বীকার করে।

খেলাধূলা দিয়ে যখন বাংলাদেশ বিশ্ব জয়ের স্বপ্ন দেখছে এবং প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল সহ জেলা উপজেলা শহরের বহু তরুন তরুনী খেলাধূলায় পা রেখে নিজেদের মেলে ধরার সুযোগ খোঁজছে, ঠিক তখনই বস্ত্র তৈরীর জন্য প্রসিদ্ধ শহর নরসিংদী জেলায় “মোসলেহ উদ্দিন ভূইয়া স্টেডিয়াম” এর ভেতর ইটের রাস্তা তৈরী করা হয়েছে, যাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

মাসুদ আহমেদ নামে এক ফেইসবুক ইউজার তার আইডিতে স্টেডিয়ামের ভেতর ইটের রাস্তা নির্মাণের ছবিটি পোষ্ট দিয়ে লেখেন-

স্টেডিয়ামে রাস্তা,হাস্যকর কাহিনী,বর্তমান বাংলাদেশ ক্রিকেট যে ভাবে এগিয়ে যাচ্ছে,সে খানে নরসিংদীর ক্রিকেট প্রায় বিলুপ্তের পথে,যদি না (BCB) ও নরসিংদী জেলা কোচ শফিকুল গণি রাজীব স্যার ক্রিকেট টাকে ধারাবাহিক ভাবে ধরে না রাখতো,যেখানে প্রত্যেক বছর ক্রিড়া সংস্থার উদ্দোগে ক্রিকেট লিগ চলা এবং ভালো-ভালো খেলোয়ার বাছায় করে জাতিয় পর্যায়ে খেলার সুযোগ করে দেয়ার কথা,সেখানে কোনো প্রকার খেলা না চালিয়ে,বিভিন্ন সময় রাজনিতিক সমাবেশ বা কোনো প্রশাসনিক কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে এই স্টেডিয়াম,যারা ক্রিড়া সংস্থার সাথে সম্পৃক্ত আমি ব্যক্তিগত ভাবে আবেদন জানাচ্ছি,কোনো খেলোয়ারের ভবিষ্যৎ নিয়ে খেলা করবেন না,প্রত্যেক বছর ক্রিকেট লীগ চালু করেন,যদি না পারেন তাহলে স্টেডিয়ামের গেইটে সাইনবোর্ড লাগিয়ে লিখে দিবেন,এখানে ক্রিকেট খেলা হয়না,ক্রিকেট খেলা নিষেদ,নরসিংদী জেলা স্টেডিয়াম শুধু মাত্র রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক কাজে ব্যবহারের জন্য,এতে করে নরসিংদীর কোনো ছেলে ঘরের মাঠে খেলে জাতিয় পর্যায়ে খেলার সপ্ন দেখবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*