ব্রেকিং নিউজ

বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়েও বড় বড় সুখবর পেলেন শাহজাদ

ইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯-এ ২টি ম্যাচ খেলেছেন মোহাম্মদ শাহজাদ। তারপরেই টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে জানানো হয় চোটের কারণে তিনি আর খেলতে পারবেন না। তবে শাহজাদ জানিয়েছেন তিনি এখন সম্পূর্ণ ফিট আছেন। তবুও জোর করেই তাকে দল থেকে বাদ দেয়া হয়েছে।

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। তবে চোটটা তেমন গুরুতর না হওয়ার মূল ম্যাচে খেলতে কোনো সমস্যা হয়নি তার। কিন্তু ব্যাট হাতে ছিলেন ব্যর্থ। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ১ম ম্যাচে রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফিরে যান তিনি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে পরের ম্যাচে করেছিলেন ৭ রান।

দলের সঙ্গ ছেড়ে নিশ্চয়ই গত কয়েকদিন বিষণ্ণ হয়ে ছিলেন আফগানিস্তানের ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ। তবে অবশেষে তিনি পেয়েছেন সুখবরের দেখা। আফগানিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে ছিটকে পড়া এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান পুত্র সন্তানের বাবা হয়েছেন।

নিজ বোর্ডের সাথে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে শাহজাদ যখন ক্ষোভে ফুঁসছেন, তখনই পেলেন এই আনন্দের সংবাদ। যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে বেড়ে ওঠা শাহজাদ বিয়ে করেছিলেন পাকিস্তানের পেশোয়ারে। স্ত্রীসহ তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা এখন পেশোয়ারেরই বাসিন্দা।

সন্তানের জনক হওয়ার খবর শাহজাদের ‘অশান্ত মন’কে হয়ত কিছুটা হলেও শান্ত করবে। বিশ্বকাপে নিজ দলের হয়ে দুটি ম্যাচ খেলার পরই শাহজাদকে দল থেকে ছিটকে যেতে হয়। আফগান ক্রিকেট বোর্ড এসিবি চোটের কারণে তাকে দল থেকে বাদ দেওয়ার কথা জানায়।

যদিও দেশে ফিরে ‘বোমা’ ফাটান শাহজাদ। তার দাবি, বোর্ড চক্রান্ত করেই তাকে বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে বাদ দিয়েছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ার্ম আপ ম্যাচে পাওয়া হাঁটুর চোট দ্রুত সেরে উঠত বলেও জানান তিনি। ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করে হুমকি দিয়েছেন ক্রিকেটকে বিদায় জানানোরও।

শাহজাদকে চোটের কারণ দেখিয়ে দল থেকে বাদ দিয়ে অন্তর্ভুক্ত করা হয় ১৮ বছর বয়সী তরুণ ক্রিকেটার ইকরাম আলী খিলকে।

যদিও নিজের প্রথম ম্যাচে ম্লান ছিল তার পারফরম্যান্স। ব্যাট হাতে মাত্র ২ রান করে আউট হন ২২ বলের মোকাবেলায়। ব্যাটিং অর্ডারের অন্যতম অভিজ্ঞ খেলোয়াড় শাহজাদকে ছাড়া আফগানিস্তান দলটি বিশ্বকাপে কতদূর যেতে পারবে- সেটিই এখন দেখার বিষয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*