ব্রেকিং নিউজ

হঠাৎ আইসিসি থেকে যে দুখবর পেল টাইগার বাহিনী

১৫ জুন, ১৯০৯ সালে ইংল্যান্ডের লর্ডসে এই প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু হয়। তখন এর নাম ছিল ইম্পেরিয়াল ক্রিকেট কনফারেন্স। প্রতিষ্ঠাকালীন এর সদস্য ছিল ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা। পরবর্তীতে এতে যোগ দেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ, নিউজিল্যান্ড, ভারত ও পাকিস্তান ক্রিকেট দল।

১৯৮৯ সালে দ্বিতীয় বারের এর নাম পরিবর্তন করে ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল’ রাখা হয় যা অদ্যাবধি প্রচলিত।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে সপ্তম অবস্থানে ৮৬ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। টানা তিন জয় এবং এক ড্রয়ের ফলে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্টও বেড়েছে ৪। এখন টাইগারদের বর্তমান রেটিং পয়েন্ট ৯০। তবে র‌্যাঙ্কিংয়ে অবস্থান সপ্তম স্থানেই আছে।

র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংরাদেশের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তান। টাইগারদের ঠিক ওপরে ৬ষ্ঠ স্থানে অবস্থান করা পাকিস্থানের রেটিং বাংলাদেশের থেকে ৪ বেশি, ৯৪। বাংলাদেশের পেছনে থাকা ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালের প্রতিপক্ষ উইন্ডিজের ৭৭ রেটিং নিয়ে ৮ম স্থানে অবস্থান করছে।

যথারীতি ইংল্যান্ড এখনো শীর্ষে আছে। তাদের রেটিং পয়েন্ট ১২৪। পাকিস্তানের বিপক্ষে ঘরের মাঠে একম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ জয় করা ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের প্রস্তুতিটা ভালোভাবেই সেরে নিচ্ছে। ১২১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ইংল্যান্ডের কাঁধে নিঃশ্বাস ফেলছে ভারত।

প্রসঙ্গত, র‌্যাঙ্কিংয়ে পরিবর্তন না এলেও বিশ্বকাপের আগে টানা জয় এবং রেটিংয়ে উলট-পালট নিশ্চয় বাংলাদেশের জন্য বড় সান্ত্বনা।

Leave a Reply