ব্রেকিং নিউজ

বিমান দুর্ঘটনায় আহত পাইলট-ক্রুরা পৌঁছেছেন

মিয়ানমারে বিমান দুর্ঘটনায় আহত পাইলট শামিম নজরুলসহ আহত তিন ক্রু, চার যাত্রী ও দুই গ্রাউন্ড ইঞ্জিনিয়ারকে বহন করে বিশেষ ফ্লাইটটি ঢাকা পৌঁছেছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ফ্লাইটটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

এ সময় বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ও সচিব উপস্থিত ছিলেন। শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে ক্যাপ্টেন শামিম নজরুলকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে এবং আহত বাকিদের রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

এর আগে শুক্রবার বেলা ৪টার দিকে ফ্লাইটটি ঢাকা থেকে মিয়ানমারের উদ্দেশে যাত্রা করে। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, সচিব মো. মহিবুল হক, অতিরিক্ত সচিব মোকাব্বির হোসেন, বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও ক্যাপ্টেন ফারহাত হাসান জামিল আহতদের সঙ্গে কথা বলেন ও তাদের খোঁজখবর নেন।

আহতের মধ্যে ১ জন সিএম এইচ হাসপাতলে, ৩ জন অ্যাপোলো হাসপাতালে, ১ জন অন্য একটি হাসপাতালে চিকিৎসা নেবেন। বাকিরা বাসায় ফিরে যাবেন।

প্রসঙ্গত, ৮ মে ইয়াঙ্গুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণকালে বৈরী আবহাওয়ার কারণে রানওয়ে থেকে বাইরে চলে যায় বিমানের ড্যাশ ৮ কিউ ৪০০ উড়োজাহাজ। বিমানটিতে ১ জন শিশুসহ ২৯ জন যাত্রী, ২ জন পাইলট, ২ জন কেবিন ক্রু ও ২ জন গ্রাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার প্রাণে বেঁচে যায়।

এ ঘটনায় সেদিন ১৯ জন যাত্রী (০১ জন শিশুসহ) আহত অবস্থায় ইয়াঙ্গুনের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি হন। পরবর্তীতে বুধবার রাতেই ভর্তিকৃত ৪ জন যাত্রীকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেয়া হয়।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স মুখপাত্র শাকিল মেরাজ জানান, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স যাত্রীদের উন্নত চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে। বিমানের পক্ষ থেকে সার্বক্ষণিক খোঁজখবর রাখা হচ্ছে।

দুর্ঘটনার তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। ৯ মে বিমানের চিফ অব ফ্লাইট সেফটি শোয়েব চৌধুরীকে প্রধান করে ছয় সদস্যের তদন্ত কমিটি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*