ব্রেকিং নিউজ

কেমন কাটলো ওয়ানডেতে বাংলাদেশের ২০১৮?

আবু সুফিয়ানওয়ানডে ক্রিকেট মানেই অন্যরকম বাংলাদেশ, ২০১৫ সালের পর থেকে ওয়ানডে ক্রিকেট হলেই বদলে যায় বাংলাদেশ। শুধু দেশের মাটিতেই নয়,বিদেশীর মাটিতেও ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে চেনারূপেই দেখা যায়। গতকাল উইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ওয়ানডে ম্যাচের মাধ্যমে ২০১৮ সালের শেষ ওয়ানডে খেলেছে বাংলাদেশ। জয়-হার এসব মিলেই কেটেছে বাংলাদেশের ২০১৮ সাল।আসুন দেখে নেই কেমন কাটলো এই বছর??

বছরের শুরুতেই ত্রীদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ, বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে সাকিব-তামিমের অসাধারণ ব্যাটিংয়ে বিশাল ব্যাবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে আবারো জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সাকিব,তামিমের অসাধারণ ব্যাটিং, সাকিব -ফিজের দুর্দান্ত বোলিংয়ে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। এরপরের ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। ত্রীদেশীয় সিরিজের ফাইনালে সাকিবের ইঞ্জুরিতে এক ব্যাটসম্যান কম নিয়ে ব্যাটিং ব্যার্থতায় হারতে হয় বাংলাদেশকে।

এরপর উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয় টাইগাররা।টেস্ট ক্রিকেটে বিপর্যস্ত বাংলাদেশ ওয়ানডে ক্রিকেটে ঘুরে দাড়ায়।সাকিব(৯৭)-তামি­­মের(১৩০*) ২০০+ জুটিতে বড় সংগ্রহতে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে লোয়ার অর্ডার ব্যাটিং ব্যার্থতায় অল্পের জন্য জয় ছুতে পারেনি টাইগাররা।সিরিজ নির্ধারনী ওয়ানডেতে তামিমের সেঞ্চুরিতে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

উইন্ডিজ সিরিজ জয়ের আত্নবিশ্বাস নিয়ে এশিয়াকাপ খেলতে গিয়েই মুশফিকের ১৪৪ রানে ভর করে বাংলাদেশ এর ওয়ানডে ইতিহাসের সবচেয়ে বড় জয় পায় বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে তামিম-ফিজ বিহীন মুখোমুখি হয় আফগানিস্তানের।লজ্জাজ­­নক হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে টাইগাররা।পরের ম্যাচেও ব্যাটিং ব্যার্থ্যতায় ভারতের বিপক্ষে পরাজয় বরন করে টাইগাররা।
\
এরপরের ম্যাচে রিয়াদ-ইমরুলের দুর্দান্ত ব্যাটিং এবং ফিজের লাস্ট ওভারের ম্যাজিকে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। ফাইনালে জেতে হলে জিততে হবে এমন ম্যাচে পাকিস্তানের বিপক্ষে মুখোমুখি বাংলাদেশ। মুশফিক(৯৯)-মিথুনের অসাধারণ ব্যাটিং এবং ফিজ, মাশরাফির অসাধারণ বোলিংয়ে জয় নিয়ে ফাইনালে চলে যায় বাংলাদেশ। ফাইনালে পতিপক্ষ ভারত।ওপেনিংয়ে লিটন-মিরাজের ১২০ রানের ওপেনিং জুটির পরও বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি বাংলাদেশ। তারপরও বোলিংয়ে অসাধারণ পারফর্ম এর করেও হারে বাংলাদেশ।

এশিয়া কাপ খেলে দেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে ইমরুলের ১৪৪ এবং সাইফউদ্দিনের ৫০+ এর মাধ্যমে বড় সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ। এই ম্যাচে হেসে খেলে জিতে যায় বাংলাদেশ। ২য় ম্যাচে লিটনের ৮০+ আর ইমরুলের ৯০+ এর মধ্য দিয়ে বড় ব্যাবধানে জয় পায় বাংলাদেশ। ৩য় ম্যাচে ইমরুল-সৌম্যর ২ শতকে ৭ উইকেট এর বড় জয়ে ৩-০ তে সিরিজ জিতে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ।

এরপর শুরু হয় দেশের মাটিতে উইন্ডিজ সিরিজ।প্রথম ম্যাচে মাশরাফির বোলিং তোপে ১৯৫ রানেই আটকে যায় উইন্ডিজ।লিটন-মুশফিক-­সাকিবের ব্যাটিংয়ে হেসে খেলে জিতে বাংলাদেশ। ২য় ম্যাচে তামিম-সাকিব-মুশফিকের­ তিন হাফসেঞ্চুরির মাধ্যমে লড়াই করার মতো সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ। কিন্তু শাই হোপের অসাধারণ ব্যাটিংয়ের মাধ্যমে জয় ছুতে পারে নি বাংলাদেশ। এরপর সিরিজ নির্ধারনী ম্যাচে আবারো ১৯৮ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে তামিম(৮১*)-সৌম্য(৮০)­ তে জিতে যায় বাংলাদেশ।

২০১৮ সালে ৩ টি ওয়ানডে সিরিজের ৩টিই জিতেছে বাংলাদেশ। এই বছরে ২০ টি ওয়ানডে খেলে বাংলাদেশ জিতেছে ১৩ ম্যাচে জয় পায় বাংলাদেশ। হেরেছে ৭ টি ম্যাচে।বছর শেষে বলাই যায় ২০১৮ সালে ওয়ানডেতে সফল বাংলাদেশ।

Leave a Reply